• মাধুকর প্রতিনিধি
  • তারিখঃ ১৯-৬-২০২৪, সময়ঃ সকাল ১০:৩৩
  • ২৭ বার দেখা হয়েছে

গরুর বিশেষ অঙ্গ ও পাকস্থলী যাচ্ছে চীন-কোরিয়ায়

গরুর বিশেষ অঙ্গ ও পাকস্থলী যাচ্ছে চীন-কোরিয়ায়

মাধুকর ডেস্ক ►

একসময় গরু জবাইয়ের পর পাকস্থলী (ওমাসম) ও পেনিস (পিজল) উচ্ছিষ্ট হিসেবে ফেলে দেওয়া হতো। কিন্তু এখন এসব রপ্তানি করে বৈদেশিক মুদ্রা আয় করছেন দেশের তরুণ উদ্যোক্তারা। আমেরিকা, কানাডা, কোরিয়া, চীন ও হংকংসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে রপ্তানি হচ্ছে এসব অঙ্গ।

এরমধ্যে চীন, ভিয়েতনাম ও হংকংয়ে গরুর ওমাসমের চাহিদা ভালো। অন্যদিকে কানাডা, আমেরিকা, জাপান ও দণি কোরিয়া পিজলের চাহিদা বেশ। এসব দেশে এক টন শুকনো পিজলের দাম ২০ হাজার ডলার, আর এক টন শুকনো ওমাসমের দাম ৬ হাজার ডলার। মূলত এগুলো দিয়ে তৈরি হয় উন্নত মানের স্যুপ ও সালাদ। যা দেশগুলোতে বেশ জনপ্রিয়।

এবার ২০ কনটেইনার ওমাসম বা গরুর পাকস্থলী সংগ্রহের ল্যমাত্রা ধরা হয়েছে। প্রতি কনটেইনারের দাম দুই লাখ ডলার। আর পিজল বা পেনিস সংগ্রহ হবে ১০০ টন। বাংলাদেশ গরুর নাড়ি-ভুড়ি রপ্তানিকারকদের আশা সরকার যদি ২ শতাংশ বাড়িয়ে প্রণোদনা ১০ শতাংশ করে, তবে এই খাত থেকে এবার ৫০০ কোটি টাকার বৈদেশিক মুদ্রা আয় করা সম্ভব।

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়