• মাধুকর প্রতিনিধি
  • তারিখঃ ৩১-৭-২০২৩, সময়ঃ সন্ধ্যা ০৬:২১

সাঘাটায় জুমারবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ে গোপনে  কমিটি গঠন নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা

সাঘাটায় জুমারবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ে গোপনে  কমিটি গঠন নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা

সাঘাটা প্রতিনিধি ►

গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার জুমারবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের গোপনে ম্যানেজিং কমিটি গঠন করা নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। এই প্রতিষ্টানের অধিকাংশ শিক্ষক ও বেশ কিছু অভিভাবক এই কমিটি বাতিলের দাবিতে জেলা ও উপজেলা শিক্ষা অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের কথা জানিয়েছেন উপজেলা শিক্ষা অফিসার । এই কমিটি ভেঙ্গে নির্বাচনের মাধ্যমে নতুন কমিটি গঠনের দাবী জানিয়েছেন শিক্ষক ও অভিভাবক মহল।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, গত বছরের ২০ ডিসেম্বর সাঘাটা জুমারবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের নিয়মিত পরিচালনা কমিটি গঠন করা হয়েছে।  নিয়মনুযায়ী উক্ত কমিটি গঠনে ক্ষেত্রে ক্লাস কক্ষে নোটিশ জারি, ভোটের তফশীল নোটিশ বোর্ডে লাগানো, ভোটার তালিকা প্রস্তুত করা ও তফসিল অনুযায়ী প্রার্থীদের মনোনয়ন গ্রহনসহ বিধি অনুযায়ী বিভিন্ন কার্যক্রম সম্পন্ন করে নির্বাচনের মাধ্যমে কমিটি গঠন করার কথা ।

কিন্তু এই স্কুলের প্রধান শিক্ষক সুজাউদ্দৌলা পরিচালনা কমিটির নীতিমালা উপেক্ষা করে, নিজের মনগড়া ভাবে স্থানীয় প্রভাবশালীদের যোগসাজোসে উপজেলা শিক্ষা অফিসারকে ম্যানেজ করে গোপনে কমিটি গঠন করেন। অপর একটি উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষককে কমিটির সভাপতি করা হয়। গোপন কমিটি গঠনের বিষয়টি বেশ দিন ধামাচাপা দিয়ে রাখা হয়।

পর্বতীতে চলতি বছরে ফেব্রæয়ারী মাসে এডহক কমিটির মেয়াদ শেষ হলে, শিক্ষক ও  অভিভাবকরা প্রধান শিক্ষককে পুর্নাঙ্গ কমিটি গঠনের তাগিদ দিলে বিষয়টি জানাজানি হয়। তখন অনেক অভিভাবক এবং অন্যান্য শিক্ষকরা মিলে পকেট কমিটি বাতিলের দাবি তোলে। কিন্তু প্রধান শিক্ষ ওই সব দাবির তোয়াক্কা না কগজ কলমে কমিটি সঠিক হয়েছে এই কমিটি বাতিল হবে না বলে সাফ জানান। পরে অভিভাবক ও অন্যান্য শিক্ষক মিলে জেলা প্রশাসকের দপ্তরে অভিযোগ দায়ের করেন।

জুমারবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের জমিদাতা ও  অবসর প্রাপ্ত প্রবীণ প্রধান শিক্ষক আব্দুল ওয়াহেদ জানান,“এই স্কুলটির আমি অবসর প্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ও জমিতাদা স্কুল সংলগ্ন আমার বাসা অথচ আমি জানতে পারলাম না স্কুরের ম্যানেজিং কমিটি কখন গঠন করা হয়েছে । গোপন কমিটি করা নিয়ে এখানে শিক্ষক কর্মচারী ও অভিভাবদের মধ্যে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়েছে। তিনি এই কমিটি ভেঙ্গে বিধি অনুযায়ী ভোটের মাধ্যমে কমিটি গঠন করতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

”জুমারবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক জানান, গোপন কমিটি গঠনে ফলে  প্রধান শিক্ষক সাথে অভিভাবকদের মতবিরোধ সৃষ্টি হয়েছে কারণ ৩০ টি গ্রামের ছেলে-মেয়ে এই স্কুলে পড়ে । ঐসব ছেলে-মেয়ের অভিভাবকদের অবগত না করে অবৈধ ভাবে কমিটি গঠন করা হয়েছে। ফলে শিক্ষকদের মধ্যে বিরোধ দেখা দেয়ায় শিক্ষার্থীদের পাঠদান ব্যহত হচ্ছে।”

অভিযোগের বিষয়ে স্কুলটির প্রধান শিক্ষক সুজাউদ্দৌলা জানান,“একটি মহল নিজেদের স্বার্থ হাসিল করতে আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্য অভিযোগ করেছেন।পরিচালনা কমিটি সম্পুর্ণ নিয়ম মেনেই করা হয়েছে। এই কমিটি গঠনের প্রয়োজনীয় তথ্য উপজেলা শিক্ষা অফিসারের নিকট জমা দেয়া হয়েছে।”

সাঘাটা উপজেলা ম্যাধমিক শিক্ষা অফিসার আহসান হাবীব জানান,“ জুমারবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের নিয়মিত পরিচালনা কমিটি গঠনের  সময় আমি শিক্ষা অফিসারের দায়িত্বে ছিলাম না। আমি সদ্য যোগদান করেছি। এই স্কুলের কমিটি গঠনের অনিয়মের অভিযোগটি তদন্তে প্রাথমিক ভাবে গোপনীয়তার প্রমাণ মিলেছে। আমরা কমিটি গঠনের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র প্রধান শিক্ষকের কাছ থেকে নিয়েছি । কাগজপত্র দেখে  বিস্তারিত  পরে জানাবো।”
 

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়