• মাধুকর প্রতিনিধি
  • ৮ মাস আগে

পার্বতীপুরে ডেমু ট্রেন উদ্ধোধন করলেন রেলপথ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন

 পার্বতীপুরে ডেমু ট্রেন উদ্ধোধন করলেন রেলপথ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন

এম এ জলিল সরকার, পার্বতীপুর  ►

বাংলাদেশ রেলওয়েকে এখন একটি পূর্ণ সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠানে পরিণত করা হয়েছে। যাত্রী সেবার মানসহ ট্রেনগুলোর উন্নয়ন করা হয়েছে। সমগ্র রুটে ডুয়েল গেজ করা হচ্ছে। ৫৮ টি ষ্টেশনে উন্নয়ন করা হয়েছে। ২০২৪ সালে বঙ্গবন্ধু রেল সেতু চালু করা হবে। দেশে ২০টি ডেমু ট্রেন রয়েছে তার মধ্যে পার্বতীপুরের কোলোকায় মেরামত করা দুটিসহ ৬টি চলাচল করছে। বাকী ১৪ টি মেরামতের ট্রায়াল অব্যাহত রয়েছে। ডেমু হচ্ছে একটি স্বল্প দুরত্বের ট্রেন। 

২০১৩ সালে ৬’শ ৩০ কোটি টাকায় চায়না থেকে এই ট্রেনগুলো আমদানি করা হয়। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য ট্রেনগুলো তারা হস্তান্তর করলেও প্রযুক্তি ও পাসওয়ার্ডগুলো রেখে দেয় তাদের মুখাপেক্ষি করতে। আমাদের বিশেষজ্ঞ প্রকৌশলীগণ অনেক গবেষনার মাধ্যমে ট্রায়াল ট্রিটমেন্ট সম্পন্ন করে অচল ডেমুকে সচল করার সক্ষমতা অর্জন করেছে। আর এটা সম্ভব হয়েছে শেখ হাসিনা সরকারের জন্য। 
দিনাজপুরের পার্বতীপুরে গত রবিবার দুপুরে দেশিয় প্রযুক্তিতে পুনঃ মেরামত করা পার্বতীপুর-রংপুর রুটে দুটি ডেমু ট্রেনের উদ্ধোধনকালে পার্বতীপুর রেল ষ্টেশনে জনসভায় এসব কথা বলেন রেলপথ মন্ত্রী মোঃ নুরুল ইসলাম সুজন এমপি। পশ্চিম রেলের জিএম অসীম কুমার তালুকদারের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন পার্বতীপুর-ফুলবাড়ী এলাকার সংসদ সদস্য সাবেক মন্ত্রী এডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার। তিনি বলেন এইতো সেদিন ১৯৭৯ সালে দেখেছি রেলের কি দুর্দশা। যেকোনো কারনে ট্রেন মিস করলে সারারাত সারাদিন বসে থাকতে হতো। আমিই ছিলাম এই পার্বতীপুর ষ্টেশনে আমনুরা ট্রেন ফেল করে বসে। সেই রেলে আজ এসি ট্রেন চলছে, ডেমু ট্রেন চলছে। এসব কথা তিনি বলেন সেকাল-একাল বোঝাতে। 

অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ রেলওয়ের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (আরএস)মঞ্জুর-উল-আলম চৌধুরী, লালমনিরহাট ডিআরএম আব্দুস সালাম, কেলোকার প্রধান নির্বাহী রফিকুল ইসলাম, পার্বতীপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব হাফিজুল ইসলাম প্রামাণিক, উপজেলা আওয়মী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আমজাদ হোসেন। জেলা প্রশাসকের পক্ষে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক বারিউল করিম খান ও পুলিশ সুপারের পক্ষে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোমিনুল ইসলাম। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন রেলওয়ের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ।  পুনঃ নির্মানকৃত ডেমুর উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ করে পরিচয় করিয়ে দেওয়া হয় বিজ্ঞ প্রকৌশলী আসাদুজ্জামানকে। তারই অকান্ত গবেষনা ও ট্রায়াল ট্রিটমেন্টে অচল দুটি ডেমুকে পার্বতীপুর কেলোকায় সচল করা হয়েছে। 

জানা গেছে, প্রতিদিন ডেমু ট্রেনটি পার্বতীপুর-রংপুর রুটে চলাচলের সময় বিকেল ৫টা ১৫ মিনিটে পার্বতীপুর থেকে ছেড়ে যাবে এবং বিকেল ৬টা ১০ মিনিটে রংপুরে পৌছবে। একই রুটে বিকেল ৬টা ২০ মিনিটে রংপুর ছেড়ে সন্ধ্যা ৭টা ২০ মিনিটে পার্বতীপুরে ফিরে আসবে। পরবর্তী কর্মদক্ষতা সন্তোষজনক হলে দিনাজপুর-পার্বতীপুর রেল রুটে ডেমু ট্রেন চালানো হবে। 

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়